Friday, 31 January 2020

সন্তানের বয়সী একটি মেয়েকে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ করলেন দিলীপ ঘোষ

ওয়েব ডেস্ক ৩১ শে  জানুয়ারী  ২০২০ :পুলিশের অনুমতি ছাড়াই কলকাতার পাটুলি থেকে সিএএ’র সমর্থনে মিছিল করল বিজেপি। দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে এই মিছিলকে পাটুলি ফায়ার ব্রিগেডের সামনেই আটকে দিল পুলিশ। পুলিশি বাধায় কোনও অশান্তির ঘটনা না ঘটলেও এদিন বিজেপির মিছিলের সামনে এসে সিএএ’র বিরোধিতা করে এক তরুণী প্রতিবাদ দেখাতে থাকে। তার হাতে থাকা সাদা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল ‘নো এনআরসি, নো সিএএ’ এবং দিলীপ ঘোষ গো ব্যাক। বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতির ভাষণের আগেই এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। অস্বস্তিতে পড়েন বিজেপি নেতৃত্ব।
বিজেপি কর্মীরা ছুটে গিয়ে প্রতিবাদী ওই তরুণীর হাতে থাকা পোস্টার কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে দেয়। পুলিশ এসে সরিয়ে নিয়ে যায় তরুণীকে। সংস্কৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ওই তরুণীর নাম সুদেষ্ণা দত্তগুপ্ত বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনায় ওই প্রতিবাদী তরুণীর উদ্দেশে দিলীপ ঘোষ বলেছেন,  ‘ভাগ্য ভাল শুধু পোস্টার কেড়ে ছেড়ে দিয়েছে। আর তো কিছু করেনি। ওর চোদ্দ পুরুষের ভাগ্য ভাল। খবর হতে আসে না শহিদ হতে?’বিজেপির রাজ্য সভাপতির এই ধরনের মন্তব্যকে কুরুচিকর বলেছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বামপন্থীরা। রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যর কথায়, দিলীপ ঘোষ তো কুকথায় লাগামহীন। মেয়েটিকে অশালীন ভাষায় কথা বলা হল। এই ধরনের সংস্কৃতির আমদানি করেছেন দিলীপবাবু। বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীর বক্তব্য, মারব, গুলি করব এসবই দিলীপবাবুর ভাষা। এসব কথা কুরুচিকর, অশালীন। খুনের ইঙ্গিত। এদিকে, শুক্রবার পাটুলিতে সিএএ’র বিরোধিতায় তৃণমূল পালটা মিছিলের ডাক দিয়েছে। বিকেলে পাটুলি থেকে বাঘাযতীন পর্যন্ত হবে এই মিছিল।

No comments:

Post a comment

loading...