Sunday, 23 February 2020

অতিথি আপ্যায়নে ত্রুটি রাখছেননা মোদীজি, ইশ এই তাগিদটা যদি বেকারত্ব ঘোচানোর জন্যেও থাকতো !

ওয়েব ডেস্ক ২৩ শে ফেব্রুয়ারী ২০২০ :অতিথি আপ্যায়নে যেন কোনও ত্রুটি না থাকে, সেজন্য সবরকম প্রস্তুতি নিচ্ছে  মোদী সরকার। শুধু আগামী মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাষ্ট্রপতি ভবনের আনুষ্ঠানিক নৈশভোজই নয়, ৩৫ ঘণ্টার ভারত সফরে ট্রাম্প পরিবারের রসনাবিলাসের সর্বোচ্চ বন্দোবস্ত করার চেষ্টাই চলছে। ইতোমধ্যে মার্কিন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জেনে নেওয়া হয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রিয় খাদ্যতালিকা। সরকারিভাবে এখনও জানানো না হলেও সূত্রের খবর, আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে ও হায়দরাবাদ হাউজে মঙ্গলবার ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া মধ্যাহ্নভোজে সেই পদগুলির কিছু কিছু রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। তার সঙ্গে অবশ্যই মিশে থাকবে ধ্রুপদী ভারতীয় খাবার।তবে ভিভিআইপি অতিথিকে যে শুধু নিরামিষ দিয়ে বরণ করা হবে না, তা স্পষ্ট। এর আগের মার্কিন প্রেসিডেন্টরা দিল্লি এসে তাদের প্রিয় সব আমিষ খাবারই পেয়েছেন। ২০০৬ সালে জর্জ বুশের সফরে পরিবেশন করা হয়েছিল, তার প্রিয় গলদা চিংড়ি, বিরিয়ানি আর ভারতীয় কারি। মহারাষ্ট্রের আলফন্সো আমও ছিল শেষ পাতে।
২০১০ সালে আসেন বারাক ওবামা। রাষ্ট্রপতি ভবনের মেনুতে ছিল তার বিশেষ আগ্রহের চিকেন শামি কাবাব, আচারি ফিশ টিক্কা, পিস্তা মুর্গ। নতুন আইটেম হিসাবে দেওয়া হয়েছিল, পালক পাপড়ি চাট আর আনারসের হালুয়া। চেটেপুটে খেয়েছিলেন বারাক।যেসব পদ ট্রাম্পের বিশেষ পছন্দের, তারমধ্যে রয়েছে ভেড়ার মাংসের মিটলোফ। প্রতিবছর তার জন্মদিনে ট্রাম্পের বোন নিজে হাতে বানিয়ে তাকে খাওয়ান। এছাড়া বিভিন্ন মাংসের স্টেক, কাঁকড়া, চিংড়ি, চেরি-ভ্যানিলা আইসক্রিম, চকোলেট কেকও ভালবাসেন তিনি। তবে প্রাতরাশে ডায়েট কোক, বার্গার ও মিটলোফ তার চাই-ই চাই! হোয়াইট হাউজ সূত্রে জানানো হয়েছে, উপরোক্ত পদগুলির সঙ্গে বেকন ও ডিমের পোচও দারুণ উপভোগ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

No comments:

Post a comment

loading...