Wednesday, 5 February 2020

সমালোচনা করলেই তার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে চাইছে বিজেপি সরকার

ওয়েব ডেস্ক ৫ই ফেব্রুয়ারী   ২০২০ :সম্প্রতি ভারতের কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল ও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ইস্যুতে দিল্লির সমালোচনা করে মালয়েশিয়া। এর জেরে সেখান থেকে পরিশোধিত পাম অয়েল আমদানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি। মঙ্গলবার শিল্পমন্ত্রী তেরেসা কককে উদ্ধৃত করে মালয়েশিয়ার পাম অয়েল কাউন্সিলের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দীর্ঘদিনের সম্পর্কের ভিত্তিতে দুই দেশ বর্তমান চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করবে এবং পারস্পরিক ও যৌথ স্বার্থরক্ষায় কাজ করবে’। বিবৃতিতে বলা হয়, এই মাস থেকে বায়োডিজেল তৈরিতে পাম অয়েলের ব্যবহার শুরু হলে অপরিশোধিত এই তেলের দাম বৃদ্ধি পাবে।
উল্লেখ্য, বার্ষিক ৯ মিলিয়ন টনেরও বেশি পাম তেল কেনা ভারত এ খাতে বিশ্বের বৃহত্তম আমদানিকারক। মূলত ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া থেকে এই তেল সংগ্রহ করে দেশটি।
কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল নিয়ে মাহাথির মোহাম্মদের সমালোচনার প্রেক্ষাপটে ২০১৯ সালের অক্টোবরে মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল আমদানি বন্ধে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল ভারতের ভোজ্যতেল ব্যবসায়ীদের শীর্ষ একটি সংগঠন। জাতিসংঘ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে ভারতকে কাশ্মিরের দখলদার শক্তি আখ্যা দিয়েছিলেন তিনি। মাহাথিরের বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারত সরকারের কঠোর অবস্থানের পরিপ্রেক্ষিতেই আমদানি নিষিদ্ধের আহ্বান জানিয়েছিল সংগঠনটি। পরবর্তীতে মাহাথির ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমালোচনা করলে এ বছর জানুয়ারির মাঝামাঝি আবারও সরকারের পক্ষ থেকে মালয়েশিয়ার পাম তেল বয়কটের আহ্বান জানানো হয়।

No comments:

Post a comment

loading...