Thursday, 13 February 2020

মাদ্রাসা নামক কোনো কিছুই আর রাখতে চাইছেনা অসম বিজেপি সরকার

ওয়েব ডেস্ক ১৩ই ফেব্রুয়ারী   ২০২০ : আসাম রাজ্য সরকার সেখানকার সরকারি মাদ্রাসা ও সংস্কৃতি কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দিচ্ছে। আগামী ছয় মাসের মধ্য এ প্রতিষ্ঠানগুলো সাধারণ স্কুলে পরিণত হবে। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা সংবাদ মাধ্যমকে জানান  বলেন, ভারতে ধর্মনিরপেক্ষ সরকার রয়েছে, তাই সরকারি মাদ্রাসা ও সংস্কৃত কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।আজ বৃহস্পতিবার রাজ্য বিজেপির সরকারের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা সংবাদমাধ্যম এসব কথা বলেন।
২০১৭ সালে মাদ্রাসার পাশাপাশি সংস্কৃত কেন্দ্র বোর্ডকে মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সঙ্গে একীভূত করা হয়েছিল। এবার তা পুরোপুরি বন্ধ করে দিচ্ছে রাজ্য সরকার। অনেক দিন ধরে চলা ধর্মীয় সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো এভাবে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করছেন অনেকে।
হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, ‘ধর্ম, ধর্মগ্রন্থ, সংস্কৃত ও আরবির মতো ভাষা শিশুদের শেখানো কোনো ধর্মনিরপেক্ষ সরকারের কাজ নয়। আসামে কোনো স্বতন্ত্র বোর্ড ছাড়া প্রায় ১ হাজার ২০০ মাদ্রাসা ও ২০০ সংস্কৃত কেন্দ্র চলছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীরাও মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের সমমানের সনদ পায় বলে অনেক সমস্যার তৈরি হয়। এ জন্য আমরা এসব মাদ্রাসা ও সংস্কৃত কেন্দ্রকে সাধারণ বিদ্যালয় করছি।’আসামে দুই হাজার বেসরকারি মাদ্রাসা আছে। সেগুলোকেও নিয়মকানুনের আওতায় আনা হচ্ছে বলেও জানান রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী।সরকারি মাদ্রাসা বন্ধে বিজেপি সরকারের এ সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করছেন অনেকেই। মুসলিমবিদ্বেষী মানসিকতা থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেই মনে করছেন অনেকেই।

No comments:

Post a comment

loading...