Saturday, 15 February 2020

আমেরিকাকে পাশে পাওয়া সত্ত্বেও তুরস্কের বৈমাত্রী সুলভ আচরণ , চাপে কেন্দ্র

ওয়েব ডেস্ক ১৫ ই ফেব্রুয়ারী   ২০২০ :কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। আর এরদোয়ানের মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত। ‘অভ্যন্তরীণ’ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবিশ কুমার।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবিশ কুমার বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। তাকে কোনোভাবেই এদেশ থেকে আলাদা করা যায় না। এ প্রসঙ্গে উল্লিখিত (রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান) সমস্ত মন্তব্যই প্রত্যাখ্যান করছি। 
কাশ্মীর বিষয়টি বোঝার জন্য তা নিয়ে যে গভীর উপলব্ধির প্রয়োজন, তা-ও স্পষ্ট করে দিয়েছেন রবিশ কুমার। এরদোয়ান প্রতি তার পরামর্শ, তুরস্ক প্রধানের উদ্দেশে বলছি, ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবেন না। বিষয়টি জানতে যথাযথভাবে তথ্যাদি উপলব্ধি করার চেষ্টা করুন। কিভাবে পাকিস্তান থেকে উদ্ভূত সন্ত্রাস ভারত এবং তার আশপাশের অঞ্চলে উদ্বেগের কারণ হচ্ছে, তা-ও বুঝতে হবে।

কাশ্মীর প্রসঙ্গে পাকিস্তানের অবস্থানকে বরাবরই সমর্থন জুগিয়ে এসেছে তুরস্ক। আন্তর্জাতিক মঞ্চেও এ বিষয়ে পাকিস্তানের পক্ষেই দাঁড়িয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। যা নিয়ে ভারতের প্রতিবাদ সত্ত্বেও ফের একই পথে হেঁটেছেন এরদোয়ান। পাকিস্তান সফরে গিয়ে শুক্রবার ফের কাশ্মীর প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। পাকিস্তানের পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনে ভাষণ দিতে গিয়ে এরদোয়ান বলেন, দ্বন্দ্ব আর অত্যাচার দিয়ে কাশ্মীর সমস্যার সমাধান হবে না। একমাত্র সুবিচার আর সাম্যের মাধ্যমেই এই সমস্যার সমাধান হতে পারে। কাশ্মীর যতটা আপনাদের (পাকিস্তান) হৃদয়ের কাছের, ততটাই আমাদেরও।

No comments:

Post a comment

loading...