Friday, 28 February 2020

কমিউনিস্টরা জানে শুধু ভিড় জমাতে আর পার্টিবাজি করতে, দেশের উন্নতি নিয়ে কোনো মাথা ব্যাথা নেই তাদের

ওয়েব ডেস্ক ২৮ শে ফেব্রুয়ারী ২০২০ :  জওহর লাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রসঙ্ঘের প্রাক্তন সভাপতি তথা সিপিআই  নেতা কানহাইয়া কুমার  পাটনায় হওয়া সংবিধান বাঁচাও নাগরিকরা বাঁচাও মহার‍্যালিতে এমন কিছু করলেন, যেটার জন্য উনি হাসির পাত্র হয়ে উঠেছেন। উল্লেখ্য, কানহাইয়া কুমারের র‍্যালিতে যখন জাতীয় সঙ্গীত  গাওয়া হচ্ছিল, তখন তিনি ‘জন গণ মঙ্গল” এর বদলে ‘জন মন গণ” গেয়ে ওঠেন। যদিও পড়ে তিনি নিজের ভুল বুঝতে পারেন।নিজের প্রাথমিক ভাষণে কানহাইয়া কুমার গান্ধী ময়দানে উপস্থিত জনতাকে দাঁড়িয়ে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার আবেদন করেন, এরপর তিনি জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া শুরু করেন।
কিন্তু জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার সময় কানহাইয়া কুমার ভুল গেয়ে বসেন। তিনি শেষের দুই লাইন গাওয়ার সময় ‘জন গণ মঙ্গল” এর বদলে ‘জন মন গণ” গেয়ে বসেন। আর এই কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় ওনাকে নিয়ে ট্রল শুরু হয়।আপনাদের জানিয়ে দিই, ঐতিহাসিক গান্ধী ময়দানে গতকাল বৃহস্পতিবার এনপিআর-এনআরসি আর সিএএ এর বিরুদ্ধে সংবিধান বাঁচাও, নাগরিকতা বাঁচাও মহা র‍্যালির আয়োজন করা হয়েছিল। ওই র‍্যালিতে জেএনইউ ছাত্র সঙ্ঘের এর প্রাক্তন সভাপতি তথা সিপিআই নেতা কানহাইয়া কুমার ছাড়াও বাম মতাদর্শে দর্শিত অনেক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।ওই র‍্যালিতে দিল্লীতে হওয়া হিংসা নিয়ে কেন্দ্র সরকারের উপর আক্রমণ করা হয়। কানহাইয়া কুমার এও বলেন যে, দিল্লীর হিংসার কারণে সে তিনদিন ঘুমাতে পারেন নি। উনি বলেন, দেশে যা হচ্ছে আমি সেই কারণে ঘুমাতে পারছি না। উনি এও বলেন, কেউ গান্ধী জিন্দাবাদ বললে তাঁকে দেশদ্রোহী বলা হচ্ছে। আর গডসে জিন্দাবাদ বললে তাঁকে দেশপ্রেমিক হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে।

No comments:

Post a comment

loading...