Saturday, 14 March 2020

মুরগির মাংসের দাম পড়তে পড়তে ৩০ টাকায় এসে থামল ।

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই  মার্চ ২০২০ : আতঙ্কের কোপ পড়েছে দেশের মুরগির মাংসের বাজারে। বেশ কিছুদিন ধরেই এই আতঙ্কের জেরে দেশটিতে কমছিল মুরগির মাংসের দাম। যদিও চিকিৎসকরা সাফ জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মুরগির মাংসের কোনো যোগ নেই। আর এবার গুজবের জন্য সেই দাম গিয়ে পৌঁছেছে ৩০ টাকায়।তেলেঙ্গানা, পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে এমন অবস্থা বিরাজ করছে। তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দরাবাদের বাজারে মুরগির মাংসের দাম এই মুহূর্তে কেজি প্রতি ৩০ টাকায় নেমে এসেছে। পরিস্কার করা মুরগীর কেজি প্রতি দাম ৪২ টাকা, চামড়া ছাড়া মুরগির দাম কেজি প্রতি ৫০ টাকা।তেলেঙ্গানা ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য উমা মাহেশ্বর রাও বলছেন, মুরগির মাংসের চাহিদায় এরকম ঘাটতি হয়েছে কারণ মানুষ ভাবছে এর থেকেই করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছে। আমাদের যা বাড়তি মুরগি আছে তা বিক্রি করে দেওয়ার জন্যই দাম কমানো হয়েছে।
উমা মাহেশ্বর বলছেন, এখনও খুচরো ব্যবসায়ীরা ১৩০ টাকা কেজিতে মুরগির মাংস বিক্রি করছেন। কিন্তু যাতে বিক্রি হয়ে যায় তাই দাম কমানোর কথা বলা হচ্ছে।তবে শুধু হায়দরাবাদই নয়। পুণে ও বেঙ্গালুরুতেও মুরগির মাংসের দাম অনেকটাই কমে গিয়েছে। পুণে ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশনের বসন্ত কুমার বলছেন, পুণেতে এখন কেজি প্রতি মুরগির মাংসের দাম ৮ থেকে ১২ টাকা। কিন্তু প্রোডাকশন কস্ট থাকে ৭৫ টাকা। মুরগির মাংসের থেকেই করোনা ভাইরাস ছড়াচ্ছে এরকমই একটি গুজবের কারণে দাম এত কমে গিয়েছে। আমরা মহারাষ্ট্র সরকার ও কেন্দ্রর কাছেও সাহায্য চেয়েছি। না হলে বড় ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে।এই গুজব যে পুরোটাই মিথ্যে তা বোঝানোর জন্য গত ২৮ ফেব্রুয়ারি পোলট্রি ফার্মার্সদের একটি মেলায় এক টুকরো মুরগির মাংস খেয়েছিলেন তেলেঙ্গানার নগরোন্নায়ন মন্ত্রী কেটি রামা রাও। কিন্তু তাতেও কিছু হয়নি। তাই ক্রমশ কমেই যাচ্ছে মুরগির মাংসের দাম।
প্রসঙ্গত, হোয়াটসঅ্যাপে একটি মেসেজ ভাইরাল হয়েছিল। সেই মেসেজে বলা হচ্ছিল, মুরগির মাংসের দ্বারাই সংক্রমিত হচ্ছে করোনা ভাইরাস। তারপরই  মুরগির দাম কমতে থাকে।

No comments:

Post a comment

loading...