Thursday, 12 March 2020

কোরোনার দাপটে লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা ক্ষতি শেয়ার মার্কেটে, সীতারামান দিশেহারা

ওয়েব ডেস্ক ১২ ই  মার্চ ২০২০ :করোনাভাইরাসের  ধাক্কায় টালমাটাল শেয়ার বাজার। বৃহস্পতিবার শেয়ার বাজারে ক্ষতি হল ৬ লক্ষ কোটি টাকা। সেনসেক্স নামল ১,৮০০ পয়েন্টে, নিফটি গেল ১০,০০০ এর নীচে। ডলার পিছু টাকার দামও পড়ল ৬৪ পয়সা।
এখন করোনাভাইরাসকে ‘প্যানডেমিক’ বা বিশ্বব্যাপী অসুখ বলে চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। যার জেরে বিভিন্ন দেশে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে, প্রবল ক্ষতির মুখে অর্থনীতি।
দিনের শুরুতেই বড়সড় ক্ষতির মুখে দেশের শেয়ার মার্কেট। বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জে (বিএসই) সেনসেক্স ১,৮২১ পয়েন্ট নেমে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৩,৮৭৬.১৩- এ। প্রায় ২০ শতাংশ নেমে গিয়েছে নিফটি। মাত্র ৬০ সেকেন্ডে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগকারীরা হারিয়েছেন ৬.২১ লক্ষ কোটি টাকার সম্পদ। প্রতিটি সেক্টরেই একই দুরবস্থা, টাকার দামও পড়ে গিয়েছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসকে ‘প্যানডেমিক’ চিহ্নিত করার পরেই বাণিজ্য বাজারে বড়সড় ধস নেমেছে। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্ববাজারে করোনাভাইরাসের প্রভাব ভয়াবহ ও বিপজ্জনক। যার নজির হয়ে থাকল বৃহস্পতিবারের শেয়ার বাজারে। বিভিন্ন সেক্টরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতিতে অ্যাভিয়েশন স্টক। ইন্টার গ্লোব অ্যাভিয়েশন, স্পাইসজেটের মতো উড়ান সংস্থার শেয়ার দর হু হু করে নামছে ভারত সরকার বিভিন্ন দেশে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারির পর। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে ভাবে করোনা আতঙ্ক বাড়ছে, তাতে ব্যবসায় স্থিতি কবে আসবে তা হলফ করে বলা যাচ্ছে না। অর্থনীতির পক্ষে এটাই গভীর শঙ্কার।
বিএসই-র ১,৭০০ অ্যাক্টিভ স্টকের মধ্যে মাত্র ১২৬ টি শেয়ারের দাম ঊর্ধ্বমুখী। টাটা মোটরসের নিফটির পতন হয়েছে ১১.৯২ শতাংশ। টাটা স্টিল, আদানি পোর্টস, ভেদান্ত, জিএসডব্লু স্টিল সবারই নিফটির পতন হয়েছে ৮ থেকে ১১ শতাংশ পর্যন্ত।
এদিকে টাকার দামও পড়ে গিয়েছে। ৬৪ পয়সা পড়ে গিয়ে ডলার পিছু টাকার দাম দাঁড়িয়েছে ৭৪.২৮ টাকা। বিশ্বব্যাপী করোনা আতঙ্কে ব্যবসায় যে দুরবস্থা তৈরি হয়েছে তা কবে কাটবে তা নিয়ে চরম উদ্বিগ্ন ব্যবসায়িক মহল।

No comments:

Post a comment

loading...