Saturday, 14 March 2020

দিল্লিতে পুলিশের পক্ষপাত্বিতের কথা এবং নৃশংসতায় যোগ দেওয়ার কথা উঠে এলো নিউইয়র্ক টাইমসে


ওয়েব ডেস্ক ১৪ই  মার্চ ২০২০ : দিল্লিতে কয়েক সপ্তাহ আগে সংঘটিত প্রাণঘাতী সহিংসতায় এক বিশেষ  জনগোষ্ঠীর ওপর পুলিশের অকথ্য নির্যাতনের তথ্য নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।তারা বলছে, প্রথম দুই দিন হিন্দু ও মুসলিম দুর্বৃত্তরা একে অপরের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়লেও, এরপর থেকে মুসলিমদের বাড়িঘর, দোকানপাট ও অন্যান্য স্থাপনায় ধারাবাহিক হামলা হয়েছে। পুলিশ সে সময় কেবল নিষ্ক্রিয়ই ছিল না, এক বিশেষ সম্প্রদায়ের  ওপর নির্দয় হামলাও চালিয়েছে।
২৪ ফেব্রুয়ারি উত্তরপূর্ব দিল্লির একটি এলাকায় হিন্দু ও মুসলমানরা একে অপরের দিকে পাথর ছুড়ছিল, বন্ধ করে রেখেছিল একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক।সন্তানদের কাছে যাওয়ার তাড়া থাকা আলি নামের এক বাসিন্দা তখন ওই সড়ক পেরিয়ে নিজের বাড়িতে  যেতে পুলিশের সাহায্য চেয়েছিলেন, আর সেটাই কাল হয় তার।পুলিশ কর্মকর্তারা তৎক্ষণাৎ তাকে মাটিতে ফেলে দিলে তিনি মাথায় আঘাত পান।
পুলিশ কেবল তাকেই নয়, আরও কয়েকজন বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষদের  নির্বিচারে পিটিয়েছিল। আহত, রক্তাক্ত ওই মানুষগুলোর কণ্ঠে যখন অনুনয় আর আকুতি ঝরছিল, পুলিশরা তখন হেসেছিল, লাঠি দিয়ে মারার ভয় দেখিয়ে জাতীয় সংগীত গাইতে বাধ্য করেছিল। নির্যাতনের এ চিত্র একটি ভিডিওতে ধরাও পড়ে।পুলিশ সেদিন যাদের আঘাত করেছিল, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাদের একজন দুদিন পর মারা যান।“পুলিশ আমাদের নিয়ে খেলছিল। তারা তখন বলেছিল, যদি তোমাদের মেরেও ফেলি, তাও আমাদের কিছুই হবে না,” সেদিনের কথা স্মরণ করে বলেন আলি।এখন পর্যন্ত সেদিন পুলিশ কর্মকর্তাদের বলা ওই কথাগুলো সত্য বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।ফেব্রুয়ারির শেষদিকে উত্তরপূর্ব দিল্লির ওই রক্তপাতকে গত কয়েক বছরের মধ্যে ভারতে হওয়া সবচেয়ে প্রাণঘাতী সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বলা হচ্ছে।

No comments:

Post a comment

loading...