Thursday, 16 April 2020

রাশিয়ার অবস্থায়ও ভয়াবহ , চীন সীমান্ত সিল করল

ওয়েব ডেস্ক ১৬ই এপ্রিল ২০২০:রাশিয়ার করোনাভাইরাস পরিস্থিতি খারাপ হয়ে উঠছে বলে সোমবার স্বীকার করে নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। প্রয়োজন পড়লে সেনা চিকিৎসক দলসহ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সব সম্পদ ব্যবহার হবে বলে জানান তিনি। ভাইরাস ঠেকাতে সামনের কয়েক সপ্তাহ চূড়ান্ত সতর্ক থাকতে হবে বলেও কর্মকর্তাদের সতর্ক করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট।রাশিয়ার স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গত এক দিনে সেখানে নতুন করে দুই হাজার ৫৫৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এক দিনে  এটাই সর্বোচ্চ শনাক্তের ঘটনা।  এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে ১৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজধানী মস্কোতে লকডাউন কঠোর করা হলেও সেখানেই সবেচয়ে বেশি আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে।
এমন পরিস্থিতিতে সোমবার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। টেলিভিশনে সম্প্রচারিত ওই বৈঠকে তিনি বলেন, পরিস্থিতি ক্রমাগত পরিবর্তন হচ্ছে। সম্ভাব্য যেকোনও পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে হবে বলে জানান তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিক্যাল স্কুল থেকে অতিরিক্ত লোকবল নিয়োগ দিতে কর্মকর্তাদের আদেশ দেন পুতিন।

বৈঠকে উপপ্রধানমন্ত্রী তাতিয়ানা গোলিকোভা প্রেসিডেন্ট পুতিনকে জানান, করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য রাশিয়ার হাসপাতালের ৪০ হাজার শয্যা প্রস্তুত রয়েছে। এই সংখ্যা ৯৫ হাজারে নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি জানান, প্রতিদিন ১৬ থেকে ১৮ শতাংশ হারে নতুন আক্রান্ত বাড়ছে।

উল্লেখ্য রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এখন দূরে থেকে কাজস চালিয়ে যাচ্ছেন। এই মাসে তার এক মুখপাত্র জানান, সম্প্রতি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে হাত মেলানো এক চিকিৎসকের করোনা সংক্রমণ শনাক্তের পর দূরে থেকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন পুতিন।

No comments:

Post a comment

loading...