Sunday, 12 April 2020

সারা পৃথিবী এবার বাংলার দিকে তাকিয়ে । কেন ? পরে দেখুন

ওয়েব ডেস্ক ১২ ই এপ্রিল ২০২০ :করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত না হওয়ায় এর চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন বহুল ব্যবহৃত একটি ওষুধ। এই হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন তৈরিতে ব্যাপক অবদান রেখেছেন খুলনার গর্ব পাইকগাছা উপজেলার রাড়ুলী গ্রামের বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়।খুলনার পাইকগাছা উপজেলার রাড়ুলী গ্রামের জগদ্বিখ্যাত বিজ্ঞানী আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায় স্থাপন করেছিলেন বেঙ্গল কেমিক্যালস। ১৯০১ সালে তাঁর স্থাপিত বেঙ্গল কেমিক্যালস ভারতে অবস্থিত। এটাই এখন করোনা মোকাবেলায় সারা বিশ্বের ভরসা হয়ে উঠছে।করোনা চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন তৈরির ব্যাপক ক্ষমতা কারখানাটির আছে বলেই তা চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শেষ পর্যন্ত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দিতে সম্মত হয়েছেন।

করোনাভাইরাসে মৃত্যুর মিছিল চলছেই। করোনা চিকিৎসায় বহুল ব্যবহৃত ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন। কিন্তু কোথায় তৈরি হবে এত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন? এবার আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের স্থাপিত সেই বেঙ্গল কেমিক্যালই বাঁচাতে পারে পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষকে।

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন উৎপাদন বাড়াতে সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যসচিব রাজীব সিনহাকে বিষয়টি দেখতে বলেছিলেন। শেষ পর্যন্ত বেঙ্গল কেমিক্যালসকে ওষুধ তৈরির নির্দেশ দেন তিনি। সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র সরকারকে নামাঙ্কিত স্ট্যাম্পে ছবিসহ টুইট করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

কারণ একমাত্র বেঙ্গল কেমিক্যালসেরই ব্যাপকভাবে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন উৎপাদনের ক্ষমতা আছে। এই বিপদের সময় বেঙ্গল কেমিক্যালসই ভরসা। প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের বেঙ্গল কেমিক্যালসই পারে পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের প্রাণ বাঁচাতে।


No comments:

Post a comment

loading...