Tuesday, 28 April 2020

চীনের প্রতি কঠোর মনোভাব দেখাল ভারত

ওয়েব ডেস্ক ২৮ শে এপ্রিল ২০২০:চিন থেকে আসা সমস্ত টেস্টিং কিট ও চিকিৎসা সরঞ্জাম ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিল কেন্দ্র। রাজ্য সরকারগুলিকে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিকেল রিসার্চের তরফে এমনই নির্দেশ পাঠানো হয়েছে।  ব়্যাপিড টেস্টিং কিট নিয়ে ভারতের ওপর দোষারোপ করছে চিন।
চিন জানিয়েছে, ভারতের চিকিৎসকরা এই টেস্টিং কিট গুলি ব্যবহার করতে জানেন না। আইসিএমআর জানিয়েছে, চিনের পাঠানো টেস্টিং কিট দিয়ে পরীক্ষা করলে সঠিক ফলাফল মিলছে না। বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম রেজাল্ট পাওয়া যাচ্ছে। যার ফলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।
চিনের রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, ‘অ্যান্টিবডি টেস্টিং কিটগুলি কেবল নজরদারি উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা উচিত। করোনা শনাক্তকরণ ও তা নিশ্চিত করার জন্য এটি ব্যবহার করা যাবে না। দেশের প্রতিটি রাজ্যকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে করোনা সম্বন্ধীয় পদ্ধতিগুলি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। আইসিএমআর এই নির্দেশাবলী অনুযায়ী টেস্টিং কিটগুলি ব্যবহার করার কথা বলেছেন।’ একটি বিবৃতিতে আইসিএমআর আরও বলেছে, করোনা ভাইরাস শনাক্ত করার জন্য সোয়াব আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করা হচ্ছে। কারণ রোগী কোভিড পজিটিভ কিনা সেটা শনাক্ত করার সর্বোত্তম উপায় এটি।

চিনের দূতাবাসের মুখপাত্র জিরাং মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘চিন থেকে অন্য দেশে রপ্তানি হওয়া মেডিকেল পণ্যের মানকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেওয়া হয়। করোনা পরিস্থিতি বুঝতে সম্প্রতি ভারতে চিনা দূতাবাস আইসিএমআর এবং দুটি চিনা সংস্থার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বজায় রেখেছে। সোমবার আইসিএমআর সব রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির প্রধান সচিবদের নির্দেশ পাঠানোর পরে এই বিবৃতি এসেছে। আইসিএমআর জানিয়েছে, ‘চিনের পাঠানো কিটগুলি খতিয়ে দেখা হয়েছে। নজরদারির উদ্দেশ্যে ভালো। তবে আসল কাজের জন্য খুব একটা কার্যকারী নয়। পরীক্ষায় বিভিন্ন রকমের ফলাফল মিলেছে।’

No comments:

Post a comment

loading...