Thursday, 23 April 2020

রীতিমত ভয় দেখানো তত্ব সামনে আনল 'ব্রিটিশ অ্যাসোসিয়েশন অফ অটোরাইনোল্যারিংগোলজি’

ওয়েব ডেস্ক ২৩ শে এপ্রিল ২০২০:করোনাভাইরাসের নতুন কয়েকটি উপসর্গ সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করে দিল ব্রিটিশ নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞদের সংগঠন ‘ব্রিটিশ অ্যাসোসিয়েশন অফ অটোরাইনোল্যারিংগোলজি’ বা ইএনটিইউকে। তারা জানিয়েছে, কোনো ব্যক্তির হঠাৎ ঘ্রাণ এবং স্বাদগ্রহণের শক্তি লোপ পাওয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ হতে পারে। জ্বর এবং সর্দি-কাশির মতো করোনার সাধারণ লক্ষণ এই সমস্ত রোগীদের শরীরে নাও দেখা যেতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে তারা।

বিশেষত চীন, ইতালি এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় বহু করোনা আক্রান্ত রোগীর ঘ্রাণ শক্তি লোপ পাওয়ার ঘটনা ধরা পড়েছে বলে গত ২১ মার্চ প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ইএনটিইউকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।ব্রিটিশ চিকিৎসক সংগঠনের তরফে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, জার্মানিতে প্রতি তিন জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে ২ জনের ঘ্রাণশক্তি লোপ পেয়েছে। অন্যদিকে, দক্ষিণ কোরিয়াতে ৩০ শতাংশ করোনা আক্রান্তের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপসর্গ হিসেবে ঘ্রাণ এবং স্বাদগ্রহণের শক্তি হারানোর বিষয়টি সামনে এসেছে। যে কারণে জ্বর বা সর্দি-কাশির মতো লক্ষণ না থাকলেও কোনও ব্যক্তির ঘ্রাণ এবং স্বাদগ্রহণের শক্তি লোপ পেলে তাকে আপাতত সেল্ফ কোয়ারানটিনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এটি একান্ত প্রয়োজন বলে ওই বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর মিছিল যেন থামবার নয়। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। দিনের শেষে সব মিলিয়ে সেই সংখ্যা কয়েক হাজারে গিয়ে ঠেকছে। সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৮৪ হাজার ২২৬।
বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিসংখ্যান জানার অন্যতম ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের ২৬ লাখ ৩৭ হাজার ৭২৩ জন। এদের মধ্যে বর্তমানে ১৭ লাখ ৩৫ হাজার ৬৮৫ জন চিকিৎসাধীন এবং ৫৬ হাজার ৬৭৯ জন (৩ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন।

এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে ৭ লাখ ১৭ হাজার ৮১২ জন (৮০ শতাংশ) সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং ১ লাখ ৮৪ হাজার ২২৬ জন (২০ শতাংশ) রোগী মারা গেছেন।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বুধবার পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২০ জনে। সুস্থ হয়েছেন ৯২ জন। এছাড়া এ পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৭৭২ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

loading...