Wednesday, 22 April 2020

তেলের কেনার জন্য উল্টে ক্রেতাদের টাকা দিচ্ছে বিক্রেতারা

ওয়েব ডেস্ক ২২ শে এপ্রিল ২০২০:নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণের ভয়ে গোটা বিশ্বের মানুষ আজ ঘরবন্দি। বেশিরভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, কল-কারাখানা বন্ধ থাকায় থমকে আছে অর্থনীতির চাকা। লকডাউনের কারণে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় চাহিদা কমেছে জ্বালানি তেলের। দামেও নেমেছে রেকর্ড পরিমাণ ধস।

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি তেলের দাম নেতিবাচক সূচকে নেমে এসেছে। অর্থ্যাৎ এ দিন আমেরিকাতে  জ্বালানি তেলের দাম নামতে নামতে শূন্যের নিচে নেমে এসেছে। যা বিশ্ব ইতিহাসে রেকর্ড। ফলে তেল নিয়ে বিপাকে পড়েন বিক্রেতার। বলা যায়, তেল কেনার জন্য উল্টো ক্রেতাদের টাকা দিচ্ছেন বিক্রেতারা। শুধু সংরক্ষণাগার থেকে এটি সরাতে চাইছেন তারা।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের তেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে ট্যাঙ্কার ভাড়া করে উদ্বৃত্ত তেল মজুদ করেছে। কিন্তু পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় চাহিদার তুলনায় তেলের জোগান মাত্রাতিরিক্ত বেশি হয়ে গেছে। ফলে মজুদ থাকা তেল নিয়ে বিপাকে পড়ে প্রতিষ্ঠানগুলো। এমনকি দাম কমতে কমতে সোমবার প্রতি ব্যারেল তেলের দাম গিয়ে ঠেকে মাইনাস ৩৭ দশমিক ৬৩ ডলারে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, আগামী মে মাস নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে তেল মজুদ রাখার ট্যাঙ্কারগুলো পরিপূর্ণ হয়ে যাবে। ততদিনে চাহিদা বৃদ্ধি না পেলে তেলের দাম নিয়ে আরো বিপাকে পড়বে আমেরিকা ।

No comments:

Post a comment

loading...