Monday, 4 May 2020

আম জনতাকে বাঁচাতে গিয়ে শহীদ হলেন পাঁচজন ভাইরতীয় সেনা ও পুলিশ

ওয়েব ডেস্ক ৪ রা মে  ২০২০: ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের হান্দওয়াড়ায় সেনা ও জঙ্গিদের মধ্যে ভয়াবহ এক বন্দুকযুদ্ধে সেনাবাহিনীর কর্নেল ও মেজরসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে পাঁচজনই ভাইরতীয় সেনা ও পুলিশ। বাকি দুইজন তথাকথিত জঙ্গি।শনিবার থেকেই উত্তর কাশ্মীরের কুপওয়াড়া জেলার অন্তর্গত হান্দওয়াড়ার চাঞ্জমুল্লা অঞ্চলে শুরু হয়েছিল সংঘর্ষ।
সেনা সূত্রের অনুযায়ী , অপহৃত কিছু ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে শনিবার নিরাপত্তা বাহিনী এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ হান্দওয়াড়ায় যৌথ অভিযান চালায়। নিরাপত্তা বাহিনী গোয়েন্দা সূত্রে জানতে পারে যে কুপওয়াড়া জেলার হান্দওয়াড়ায় সন্ত্রাসীরা একটি বাড়িতে কয়েকজনকে আটকে রাখা হয়েছে।
এরপরই জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশে সঙ্গে মিলে সেখানে যৌথ অভিযান চালায় ভারতীয় সেনারা। দলে ছিলেন পাঁচ সেনাকর্মী ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশকর্মীরা। ওই নাগরিকদের উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় দলটি।সেনাবাহিনী ও পুলিশের দলটি ঘরের ভিতরে ঢুকে অপহৃতদের মুক্ত করতে সমর্থ হয়। কিন্তু এ সময়ে জঙ্গিরা গুলিবর্ষণ শুরু করে। পাল্টা গুলি চালায় সেনারা। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক লড়াই শুরু হয়। ওই বন্দুকযুদ্ধে দুই জঙ্গি নিহত হন।

এছাড়া দুই সেনা কর্মকর্তা ও দু্ই জওয়ানও নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন-মেজর অনুপ শুদ, কর্নেল আশুতোষ শর্মা এবং নায়েক রাজেশ, ল্যান্স নায়েক দীনেশ এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের উপ-পরিদর্শক শাকিল কাজী।

এদিকে, ওই ঘটনায় ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে শোক প্রকাশ করেছেন।

No comments:

Post a comment

loading...