Tuesday, 5 May 2020

আঁধার কার্ডের মাধ্যমে রেশন নিশ্চিন্ত করার পক্ষে সওয়াল করলেন অভিজিৎ বিনায়ক

ওয়েব ডেস্ক ৫ই  মে  ২০২০:মে: কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর সঙ্গে‌ নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দোপাধ্যায়ের আলোচনায় উঠে এল রেশন বণ্টন প্রক্রিয়া থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজ ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির একাধিক প্রসঙ্গ। অভিজিৎ বললেন, রেশন ব্যবস্থার জন্য যে কার্ড চালু আছে, এই সংকটের মুহূর্তে সেটি ব্যবহার করার উপায় নেই। এখন আরও অনেক বেশি সংখ্যায় মানুষের কাছে রেশন পৌঁছে দেওয়া দরকার। তাই খাদ্য সমস্যা মেটাতে সাময়িক রেশন কার্ড দিতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। যিনি সেটি চাইবেন, তিনিই যেন পান। ওয়াক ইন–এর মতো। বলা থাকবে এই রেশন কার্ডটি হয়ত আগামী ছ’‌মাস মা তিন মাসের জন্য কার্যকর থাকবে। যাতে সংকটের সময়ে কোনও অংশে খাদ্যের অভাব না হয়।
আধারের ভিত্তিতে রেশন দিলেও ভাল হয়। তাহলে দেশের সর্বত্র সাধারণ মানুষের কাছে রেশন পৌঁছে যাবে। একজন পরিযায়ী শ্রমিক যদি নিজের বাড়ির ‌শহরের বাইরে থেকেও রেশন তুলতে চান, তাহলে তিনি যাতে আধার কার্ড দেখিয়ে রেশন দোকান থেকে জরুরি জিনিস কিনতে পারেন। আধার কার্ডের অন্য একটি প্রয়োগের দিকও তিনি এদিন মনে করিয়ে দেন। অভিজিৎ বলেন, মুম্বইয়ে হয়ত কোনও শ্রমিক আছেন। তিনি তো সেখানে ১০০ দিনের কাজ পাবেন না। কিন্তু যদি আধারের ভিত্তিতে এনরেগা চালু হয়, তাহলে তিনিও সেখানে সামান্য কাজ পেতে পারেন।

ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ নিয়েও এদিন সামান্য আলোচনা করেন দু’‌জনে। অভিজিৎ মনে করিয়ে দেন, আমেরিকা ও ব্রাজিলের মতো দেশগুলি একক ব্যক্তির ক্যারিশমায় করোনা মোকাবিলার কথা ভাবলেও শেষে মুখ থুবড়ে পড়েছে। তাই ভারত যত স্থানীয় প্রশাসনকে গুরুত্ব দেবে, যত স্থানীয় লোকেদের কাজ করতে দেওয়া হবে, তত সুবিধা হবে লড়াই করতে। ‘‌‌স্ট্রং ম্যান’‌ থিয়োরিতে থাকলে সর্বনাশ হবে, সেটা ব্রাজিল ও আমেরিকাকে দেখলেই বোঝা যাচ্ছে।

No comments:

Post a comment

loading...