Wednesday, 27 May 2020

মন্ত্রী রেণুকা সিং কি ভুলে গেছেন তার সংস্কৃতি ? না এটাই তার সংস্কৃতি

ওয়েব ডেস্ক ২৭শে মে ২০২০:কেন্দ্রীয় উপজাতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী রেণুকা সিং সরকারি চাকরিজীবীদের হুমকি দিয়ে বলেছেন, অন্ধকার কুঠরিতে নিয়ে গিয়ে বেল্ট দিয়ে পেটাবো। আর এই বক্তব্যে গোটা ঘটনাটি দেখা যায় একটি ভিডিওতে।
সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। আর এর পড়েই উঠে সমালোচনার ঝড়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, বিতর্কিত মন্তব্যে বিজেপি নেতা-মন্ত্রীদের সংবাদ শিরোনামে আসা নতুন কোনো বিষয় নয়। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন কেন্দ্রীয় উপজাতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের রেণুকা সিং।
রোববার (২৪ মে) ছত্তিশগড়ের বলরামপুরে করোনাভাইরাস কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পরিদর্শনে যান মোদি সরকারের এই মন্ত্রী। সেন্টারে অব্যবস্থাপনার অভিযোগ ওঠায় উপস্থিত কর্মকর্তাদের তীব্র ভৎসনা করেন রেণুকা।

এক পর্যায়ে তিনি বলেন, দাদাগিরি চলবে না। কোনো অফিসার এটা ভাববেন না, আমরা ক্ষমতায় নেই। আমরা ১৫ বছর রাজ্যে সরকার চালিয়েছি। করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পর্যাপ্ত অর্থ আছে। প্রত্যেকে যাতে তাদের প্রয়োজনীয় অর্থ পায়, তা আমি নিশ্চিত করব। ভুলেও এমন মনে করবেন না যে, গেরুয়াধারী বিজেপি কর্মীরা দুর্বল।

এখানে না থেমে মন্ত্রী আরও বলেন, অন্ধকার কুঠরিতে নিয়ে গিয়ে কীভাবে বেল্ট খুলে পেটাতে হয়, তা আমি ভালোই জানি।

দিল্লি থেকে ফেরার পর সরকারি নিয়ম মেনে দিলীপ গুপ্তা নামে বলরামপুর জেলার এক বাসিন্দাকে এই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখা হয়। কিন্তু ওই সেন্টারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন তিনি। ভিডিওটি আপলোডের কারণে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা নিগ্রহ করেন বলেও অভিযোগ করেছেন দিলীপ। তাকে চুলের মুঠি ধরে মারধর করা হয় বলে জানান।

No comments:

Post a comment

loading...