Monday, 18 May 2020

খোলা স্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে করলে করোনা কমেনা উল্টে মানুষ ও পশুপাখির স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়:হু

ওয়েব ডেস্ক ১৮ই  মে  ২০২০:নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে জীবাণুনাশক ব্যবহার করছে বিশ্বের বহু দেশ। তবে যত্রতত্র জীবাণুনাশক ছড়ানোকে অর্থহীন বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটি জানিয়েছে, খোলা স্থানে জীবাণুনাশক ব্যবহারে করোনাভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা কমেনা। বিপরীতে মানুষ ও পশুপাখির স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয় বলে জীবাণুনাশক স্প্রে করার ওপর এক বিবৃতিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ডব্লিউএইচও।
কোনোভাবেই কোনো ব্যক্তির উপর জীবাণুনাশক ছড়ানো উচিৎ নয় উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়,  বিশেষ করে ক্লোরিন বা অন্য কোনো টক্সিক পদার্থ তো নয়ই। কারণ এই উপাদানগুলি মানুষের ত্বক এবং চোখের উপর ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলতে পারে। সেইসাথে মানুষের শারীরিক ও মানসিকভাবে ক্ষতি করে।

এছাড়া জীবাণুনাশক ছড়ানোর ফলে কোনো ব্যক্তির থেকে কোভিড-১৯ ছড়ানোর সম্ভাবনা একটুও কমে না।

যত্রতত্র জীবাণুনাশক ছিটিয়ে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের কোনো ক্ষতি করা সম্ভব নয় উল্লেখ করে ডব্লিউএইচও আরো জানায়, খোলা জায়গা, যেমন বাজার এলাকা কিংবা রাস্তায় জীবাণুনাশক ছড়ালে কোভিড-১৯ মরে না। কারণ ধুলো ও ইঁট-পাথরে এই জীবাণুনাশকের উপাদানগুলি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়।

যদি ধুলো-ময়লা নাও থাকে, তারপরও জীবাণুনাশকের উপাদানগুলির পক্ষে কম সময়ের মধ্যে পুরো জায়গার উপর ছড়িয়ে যাওয়া সম্ভব হয় না। ফলে তার কর্মক্ষমতা অনেক কমে যায় বলেও জানানো হয় বিৃবতিতে।

এছাড়াও বাড়ির ভিতরে জীবাণুনাশক ছিটিয়েও খুব একটা লাভ হবে না উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, জীবাণুনাশক ছড়িয়ে লাভ তো হবেই না উল্টো মানুষ ও পশুপাখির স্বাস্থ্যেরই ক্ষতি হবে।

No comments:

Post a comment

loading...