Tuesday, 19 May 2020

আম্ফানের দাপটে কতটা ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে বিশেষজ্ঞরাও এবিষয়ে অজ্ঞ

ওয়েব ডেস্ক ১৯ই  মে  ২০২০:বুধবার ভারতের পূর্ব উপকূলে আঘাত হানতে পারে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।ভারতীয় কর্তৃপক্ষ পূর্ব উপকূলে এরই মধ্যে অন্তত ২০টি ত্রাণ প্রদানকারি গ্রুপকে নিয়োগ করেছে।শক্তিশালী ঝড়ের প্রভাব মোকাবেলার জন্য শিগগিরই ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী একটি জরুরি বৈঠক ডাকবেন বলে জানা গেছে। নরেন্দ্র মোদির এই বৈঠকে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থাকবেন।



করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে প্রচুর লোক শহর থেকে গ্রামে গিয়েছে। ফলে উড়িষ্যা ও পশ্চিম বঙ্গের গ্রামে এখন লোকসংখ্যা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে বেশি, যা ক্ষয়ক্ষতির ব্যাপকতারও ইঙ্গিত দিচ্ছে।

যে অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড়টি ব্যাপক আঘাত হানবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে, সেখানে প্রচুর খেটে খাওয়া মানুষের বাস। যাদের বাড়িঘর ঘূর্ণিঝড়ের মতো তাণ্ডব মোকাবেলার জন্য সক্ষম নয়। ফলে ঠিক কতোটা ক্ষতি হতে পারে, সে বিষয়ে এক রকম অন্ধকারেই আছে কর্তৃপক্ষ।

১৯৯৯ সালে বঙ্গোপসাগর থেকে সৃষ্টি হওয়া সুপার সাইক্লোনে অন্তত ৯,০০০ লোকের মৃত্যু হয়েছিলো। এরপর আম্ফানের আগে তেমন কোনো সুপার সাইক্লোন উল্লেখিত অঞ্চলে আঘাত হানেনি।

ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর হলুদ সতর্কতা জারি করেছে এবং আগামী ২৪ ঘণ্টা জেলেদের বঙ্গোপসাগরের দক্ষিণাঞ্চলের দিকে যেতে নিষেধ করেছে। এ ছাড়া বঙ্গোপসাগরের উত্তরাঞ্চলে যাওয়ার ক্ষেত্রে ২০ মে পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

No comments:

Post a comment

loading...