Sunday, 31 May 2020

অর্থিনীতি তলানিতে ঠেকেছে বলেই লকডাউনে শিথিলতা

ওয়েব ডেস্ক ৩১শে মে ২০২০: লকডাউন ৪ এর শেষ দিন অর্থাৎ রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর মাসিক রেডিও অনুষ্ঠান ‘মন কি বাত’-এ  জোর দিলেন সতর্ক থাকার বিষয়ে। তিনি জানালেন, যেহেতু অর্থনীতির বিরাট অংশ উন্মুক্ত করা হয়েছে, তাই আরও সতর্ক হতে হবে সকলকে। শনিবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয় লকডাউনের মেয়াদ ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এটি লকডাউন আনলক করার ফেজ-১ বলেও বর্ণনা করা হয়। সমস্ত দোকান খুলে দেওয়া হয়েছে। রেল, সড়ক ও বিমান পরিষেবাও শুরু হয়েছে।
মল, হোটেল, রেস্তোরাঁ, ধর্মীয় স্থান ৮ জুন থেকে খুলে দেওয়া হবে। সমস্ত নিষেধাজ্ঞাই এভাবে ধাপে ধাপে তুলে দেওয়া হবে বলেও সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘শেষবার যখন আমি কথা বলেছি‌লাম তখনও যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা বন্ধ ছিল। কিন্তু এখন সব নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ের বিষয়ে আমাদের অমনোযোগী হওয়া উচিত নয়। সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য প্রোটোকলকে একই ভাবে মেনে চলতে হবে আমাদের।”
তিনি জানান, ভারত এই সংক্রান্ত বিষয়ে বহু চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘হ্যাঁ, আমরা বহু কম জনসংখ্যার দেশের তুলনায় আমাদের দেশে করোনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে অনেকাংশেই সফল হয়েছি।”
প্রসঙ্গত,৬০ দিনের লকডাউনের সময়ে ভারত সবচেয়ে করোনা-বিধ্বস্ত দেশের তালিকায় ন’নম্বরে উঠে এসেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১.৮২ লক্ষ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৮,৩৮০ জন আক্রান্ত হয়েছেন যা একদিনের নিরিখে সংক্রমণের নয়া রেকর্ড।

No comments:

Post a comment

loading...