Thursday, 14 May 2020

ধেয়ে আসছে 'আমফান', সাবধান করল আবহাওয়া দফতর

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই  মে  ২০২০:ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আমফান’ ।দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ ঘণীভূত হয়েছে ।সংলগ্ন আন্দামান সাগরেও রয়েছে নিম্নচাপ ।শনিবার নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে ।শনিবার পর্যন্ত এ রাজ্যে ‘আমফান’-র প্রভাব পড়বে না । দক্ষিণ আন্দামান সাগরে তৈরি হয়েছে লঘুচাপ এলাকা। যা আগামিকালের মধ্যে সুস্পষ্ট নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।
এই নিম্নচাপটি আগামী ১৬ মে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। যা ১৯-২০ মে-র মধ্যে আঘাত হানতে পারে সৈকতে। সেজন্য সমুদ্রে যাওয়ার ওপর সতর্কতা জারি করে বুলেটিন প্রকাশ করেছে আবহাওয়া দফতর। প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়েছিল যে, অন্ধ্র ও ওড়িশা উপকূলেই ঝাঁপিয়ে পড়বে এই সাইক্লোনিক স্টর্ম ৷ কিন্তু যেভাবে ধীরে ধীরে গতিপথ বদলাচ্ছে তাতে উত্তর বঙ্গোপসাগরের দিকেই আস্তে আস্তে এগোচ্ছে এই ঝড় ৷প্রাক সাইক্লোনিক ক্লাউড ক্লাস্টার আস্তে আস্তে পশ্চিমদিকে এগোচ্ছে ৷ যা ৫ ডিগ্রি স্কোয়ার এলাকা দখল করে রেখেছে ৷ ১৬ মে নাগাদ যেটা দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের মধ্যাঞ্চলে থাকবে ৷
এখনও পর্যন্ত সাইক্লোনের গতি অনুধাবন করে আবহওয়াবিদদের ধারণা অনেকটা সাইক্লোন বুলবুলের পথেই আমফান ঝাঁপিয়ে পড়বে স্থলভাগে ৷ মূলত বাংলাদেশের দিকে লক্ষ্য করেই এগোবে এই ঝড় আর যার একটা বড় প্রভাব পড়বে পশ্চিমবঙ্গেও ৷ তবে আইএমডি বা ইন্ডিয়ান মেটিওরলজিক্যাল ডিপার্টমেন্টের সাইক্লোন ট্র্যাকারে এও বলা হয়েছে এই সাইক্লোন আমফান একেবারে উত্তর দিকেও চলে যেতে পারে সেক্ষেত্র ভারতীয় উপকূলকে ক্ষতিগ্রস্ত নাও করতে পারে এই সাইক্লোনিক স্টর্ম৷বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের জেরে পশ্চিমবঙ্গে বর্ষা আসতে দেরি হতে পারে বলে অনুমান। কারণ ঘূর্ণিঝড় প্রচুর জলীয় বাস্প টেনে নিয়ে তা বৃষ্টি হিসাবে ঝরিয়ে দেয়। ফলে পশ্চিমবঙ্গে বর্ষা ঢোকা নির্ভর করছে ঘূর্ণিঝড়টি কত শক্তিশালী হচ্ছে তার ওপর।

No comments:

Post a comment

loading...