Wednesday, 10 June 2020

বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান একাধিক কর্মীর, উত্তরবঙ্গে

ওয়েব ডেস্ক ১০ই   জুন  ২০২০:লকডাউনের বিধি উড়িয়ে জমায়েত করার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। বুধবার দুপুরে কোচবিহার জেলার হলদিবাড়ির দেওয়ানগঞ্জ হাই স্কুলে কর্মীসমাবেশ করার অভিযোগ তুলল বিজেপি। সূত্রের খবর, সেই কর্মীসভায় বেশ কয়েক জন বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগদান করেন। লকডাউনের মধ্যে জমায়েত করার পাশাপাশি কোনও প্রকার স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়নি বলে বিজেপির অভিযোগ। পাল্টা লকডাউনের মধ্যে অমিত শা’র ভার্চুয়াল জনসভা করার বিষয়ে সরব হন তৃণমূলকর্মীরা।
এদিনের কর্মীসভায় উপস্থিত ছিলেন, মেখলিগঞ্জের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান,মহকুমা কমিটির সদস্য আলিউল হক সরকার,গৌরাঙ্গ বিশ্বাস,দিগেশ বিশ্বাস প্রমুখ। স্থানীয় বিজেপির দক্ষিণ মন্ডল কমিটির সাধারণ সম্পাদক অপূর্ব রায়,সহ সভাপতি সত্যজিৎ রায়ের অভিযোগ, খোদ মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রীর নির্দেশ মানছেন না তৃণমূল কর্মীরাই। লকডাউনের মধ্যে স্বাস্থবিধি উপেক্ষা করে কমপক্ষে পাঁচশত কর্মী সমর্থক নিয়ে বৈঠক করেছে তৃণমূল কর্মীরা। জমায়েত করেন। এরফলে, এলাকায় করোনার সংক্রামণের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

যদিও অভিযোগ মানতে চাননি তৃণমূল নেতারা। মেখলিগঞ্জের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান অমিত শাহের বিরুদ্ধে লকডাউনের বিধি ভেঙে ভার্চুয়াল সভা করার অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, বিজেপির অভিযোগ ঠিক নয়। তাঁরাই বিশি ভেঙ্গে ভার্চুয়াল সমাবেশ করেছে। আমরা লকডাউনের বিধি মেনে বৈঠক করেছি।

এদিকে বিজেপির অভিযোগের সবটা না মানলেও তৃণমূলের মহকুমা কমিটির সদস্য আলিউল হক সরকার বলেন, প্রথমদিকে না বুঝেই প্রচুর কর্মী-সমর্থক বৈঠকে চলে আসেন। বৈঠকে বিধায়ক আসার আগেই তাঁদের পাঠিয়ে দেওয়া ফেরৎ পাঠানো হয়। সামাজিক দূরত্ব মেনে স্যানিটাইজার ব্যবহার করে বৈঠক করা হয় বলে তিনি দাবি করেন।

অন্যদিকে, তৃণমূলের মহকুমা কমিটির সদস্য গৌরাঙ্গ বিশ্বাস বলেন, বিগত লোকসভা ভোটের আগে এলাকার বেশ কিছু পরিবার বিজেপির প্ররোচনায় বিজেপি-তে যোগদান করে। লোকসভা ভোটে বিজেপির প্রার্থীকে ঢেলে ভোটও দিয়েছে। কিন্তু, তারপর থেকে সাংসদকে আর এলাকায় দেখা যায়নি। লকডাউনের মধ্যে গত তিন মাস ধরে বিপদে পড়েন এলাকার ‘দিন আনা, দিন খাওয়া’ গ্রামীণ পরিবারগুলি। এই বিপদের সময়ে তাঁদের সাহায্য করা তো দূরের কথা, দেখা পর্যন্ত করেনি বিজেপি সাংসদ ডাঃ জয়ন্ত রায়। তাই, মোহভঙ্গ হয়ে বহু সাধারণ মানুষ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। স্থানীয় ৩১টি বিজেপি সমর্থক পরিবার তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন মেখলিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান।

No comments:

Post a comment

loading...