Thursday, 4 June 2020

রাশিয়ার নদীতে ভাসছে জ্বালানি তেল , আধিকারিকদের ওপর ক্ষোভে ফেটে পড়েন পুতিন

ওয়েব ডেস্ক ৪ ঠা  জুন  ২০২০:জ্বালানি তেলের ট্যাংক ফেটে রাশিয়ার সুমেরু অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে ২০ হাজার টন তেল। এতে ওই অঞ্চলে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। গত শুক্রবার এ ঘটনাটি ঘটলেও রাশিয়ার কর্মকর্তারা জানতে পেরেছেন দুইদিন পরে। এতে কর্মকর্তাদের ওপর ক্ষোভে ফেটে পড়েন  পুতিন। ঘটনা দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।


সূত্রের খবর অনুসারে  , থার্মাল পাওয়ার স্টেশনের বিশাল এই জ্বালানির ট্যাংক ফাটার ঘটনা ঘটেছে নরিলক্সে। এটি সুমেরুবৃত্তের ১৮০ মিটার ওপরে রাশিয়ার উত্তরাংশের একটি বিচ্ছিন্ন শহর। রাশিয়ার নরিলক্স নাইকেল খনি ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত, এই কোম্পানির ট্যাঙ্ক ফেটে এই ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে, যেখানে প্রায় ২০ হাজার টন তেল ছিল। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বেশিরভাগ তেলই নিকটবর্তী নদীতে ভেসে গেছে এবং বাকিটা মিশে গিয়েছে তাইমিরস্কি ডলগ্যানোর জেলার একতো রিসার্ভারে।

ওপর থেকে তোলা কিছু ভিডিও এবং ছবিতে দেখা গেছে আমবারনয়া এবং দাদিকান নদীর বিশাল অংশ লাল হয়ে গেছে। দূষণ এতটাই বেশি যে গুগল ম্যাপে এবং ইয়ান্ডেক্স ম্যাপের স্যাটেলাইট ইমেজেও তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। পরিবেশবিদরা সতর্ক করছেন, ওই অঞ্চলে দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হতে পারে।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বুধবার জরুরি অবস্থা ঘোষণার পাশাপাশি দ্রুত পদক্ষেপ না নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের তীব্র সমালোচনা করেছেন। জরুরি অবস্থা জারির অর্থ হচ্ছে পড়ে যাওয়া ডিজেল পরিষ্কারে বাড়তি গুরুত্ব দেয়া হবে।

No comments:

Post a comment

loading...