Thursday, 11 June 2020

আবর্জনার গাড়িতে করোনা মৃতের লাশ ,সাসপেন্ড উপস্থিত পুলিশ কর্মীরা

ওয়েব ডেস্ক ১০ই   জুন  ২০২০:করোনা নিয়ে উদ্বেগে দেশ–দুনিয়া। এই চরম সঙ্কটের সময় দেশবাসীর অমানবিক মুখটা যেন আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠল। কোথাও করোনার রোগীর অন্ত্যেষ্টি করতে চাইলেন না দাহকর্মী। কোথাও আবার দাহ মাঝপথে থামিয়ে দেওয়া হল। কোথাও আবার করোনায় মৃতের দেহ ছুড়ে ফেলা হল কবরে। এবার পথে মৃত ব্যক্তির দেহ থানায় আনা হল আবর্জনার গাড়িতে। পাছে তাঁর করোনা হয়ে থাকে!‌


উত্তরপ্রদেশের বলরামপুরের ঘটনা। ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। তাতে দেখা গেল, পুলিশের উপস্থিতিতে মৃতদেহ প্লাস্টিকে মুড়ে তোলা হচ্ছে আবর্জনার গাড়িতে। তাতে চাপিয়েই দেহ আনা হয় স্থানীয় থানায়। ঘটনাস্থলের পাশেই দাঁড়িয়ে ছিল অ্যাম্বুল্যান্স। সেটিও দেহ তুলতে অস্বীকার করে। সমালোচনার মুখে পড়ে চার পুলিশকর্মী সহ চার পুরকর্মীকে সাসপেন্ড করেছে প্রশাসন।
মৃতের নাম মহম্মদ আনোয়ার। বয়স ৪২ বছর। বলরামপুরের বাসিন্দা তিনি। বৃহস্পতিবার সরকারি কাজে স্থানীয় সরকারি অফিসে গিয়েছিলেন। সেখানেই অসুস্থ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। মৃত্যু হয় তাঁর। এর পর কেউ তাঁর দেহ ছুঁতে পর্যন্ত চাননি। দেহের পাশের পড়েছিল প্লাস্টিকের জলের বোতল। কে বা কারা ওটা রেখেছে, জানা যায়নি।
জেলার পুলিশ সুপার দেবাঞ্জন বর্মা এই ঘটনাকে অমানবিক ও সংবেদনশীল বলে জানালেন। তিনি বললেন, ‘‌সংক্রমণের আতঙ্ক রয়েছে চারদিকে। তাই এমন একটা অমানবিক আচরণ করেছেন পুলিশকর্মীরা। পুলিশ ও পুরকর্মীদের এই আচরণ গ্রহণযোগ্য নয়। কোনও ব্যক্তি করোনা সংক্রমণে মৃত হলে তাঁকে বহন করার জন্য পিপিই কিট পরতে হয়। এই বিষয়ে আমি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছি।’‌ কীভাবে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে, তা জানতে ময়না তদন্ত হবে।

No comments:

Post a comment

loading...