Thursday, 25 June 2020

মমতার ডাকে নিজের কর্মসূচি বাতিল করলেন দিলীপ ঘোষ, নিজের বিবেকের কাছে হার মেনেই কি ?

ওয়েব ডেস্ক ২৫শে  জুন  ২০২০: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা সর্বদলীয় বৈঠককে ‘দিদিমণির পাঠশালা’ বলে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বৈঠকে যোগ দিতে যাওয়ার আগে কটাক্ষের সুরে তিনি বললেন, “পার্লামেন্টেও গিয়েছিলাম। বিধানসভাতেও গিয়েছি। এটা আর নতুন কী? দিদিমণির পাঠশালায় ডেকেছে, যাবও।
সূত্রের খবর, বুধবারের বৈঠকে উপস্থিত হওয়ার জন্য সোমবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রীর ফোন যায় দিলীপের কাছে। কিন্তু প্রথম তিনি জানান, বুধবার দলীয় কর্মসূচিতে মেদিনীপুরে যাওয়ার কথা তাঁর। উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ওসব পরে হবে, বৈঠকে আসবেন।’

তারপরই নিজের কর্মসূচি বাতিল করে বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন বলে কথা দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। সর্বদল বৈঠকে বিজেপি কী কী ইস্যু নিয়ে সরব হবে, সেকথাও জানান দিলীপ ঘোষ। বলেন, “নানারকম দুর্নীতি হয়েছে। তৃণমূলের আত্মীয়া টাকা পেয়েছেন। আমরা বিডিও অফিস থেকে তালিকা জোগাড় করার চেষ্টা করেছি সব। আমাদের কর্মীরা ত্রাণ দিতে গিয়ে বার বার আক্রান্ত হচ্ছে। সেইসব নিয়ে বলব।”

দিলীপ ঘোষ বলেন, “কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা, কোয়াকেন্টিন প্রক্রিয়া ও সৎকারের ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের খামতি নিয়ে সরব হয়েছি আমরা। সেগুলিকেই সর্বদল বৈঠকে ফের তুলে ধরব।” তবে বিরোধিতার পাশাপাশি সরকারের বিকল্প কী করণীয় তা নিয়েও বিজেপি প্রতিনিধিরা এদিন পরামর্শ দিতে পারেন।

দিলীপ ঘোষ ছাড়াও বিজেপির পক্ষ থেকে এদিনের বৈঠকে যোগ দিয়েছেন মনোজ টিগ্গা, জয়প্রকাশ মজুমদার। এদিন দিলীপ ঘোষ করোনায় বিধায়ক তমোনাশ ঘোষের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেন। তোপ দাগেন রাজ্য সরকারের উদ্দেশে। বলেন, “তমোনাশ ঘোষের মৃত্যু দুর্ভাগ্যজনক ৷ ১ মাস ধরে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সরকার ভিআইপিদেরও চিকিৎসার সুষ্ঠু ব্যবস্থা কর‍তে পারছে না। এটা ব্যর্থতা।”

No comments:

Post a comment

loading...