Sunday, 14 June 2020

যোগীকে সংযত থাকতে বলুন ,ভারতকে আর্জি নেপালের

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই জুন  ২০২০:যোগী আদিত্যনাথ  সাম্প্রতি মানচিত্র ইস্যুতে নেপালের সমালোচনা করতে গিয়ে তিব্বতের প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। এ নিয়ে যোগীর তীব্র নিন্দা করেছে নেপাল। তারা মোদি সরকারকে তাদের এই নেতাটিকে বেফাঁস কথাবার্তা থেকে দূরে রাখতে নিয়ন্ত্রণ করারও পরামর্শ দিয়েছেন।

গত বুধবার (১০ জুন) নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি দেশের নতুন মানচিত্র পার্লামেন্টে পাস করাতে সংবিধান সংশোধনীর প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এতে সমর্থন দেয় প্রধান বিরোধী দল নেপাল কংগ্রেস। এই সময়েই নেপালকে নিয়ে করা যোগীর মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন ওলি।

তিনি বলেন, ‘নেপাল সম্পর্কে অনেক বাজে মন্তব্য করেছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। বিষয়টি তার এক্তিয়ারভুক্ত না হওয়া সত্ত্বেও নেপাল সম্পর্কে অসম্মানজনক কথা বলেছেন। ভারত সরকারের শীর্ষ নেতৃত্বের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা উচিত। যে বিষয় তার এখতিয়ারে নেই, সেই বিষয়ে তাকে কথা বলা থেকে বিরত রাখাটা তাদেরই (ভারতীয় নেতৃত্ব) দায়িত্ব। নেপাল সম্পর্কে উনি যে মন্তব্য করেছেন আমরা তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই।’

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নেপালকে উদ্দেশ্য করে যোগী বলেছিলেন, ‘নেপালের ভাবা উচিত তিব্বতের সঙ্গে কী করেছে চীন। সেই কথা চিন্তা করে তাদের তিব্বতের মতো ভুল করা উচিত নয়। রাজনৈতিক ভাবে ভারত ও নেপাল দুটি আলাদা দেশ হলেও দুজনের আত্মা এক। দুই দেশের সংস্কৃতি ও ইতিহাস এক অপরের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গীভাবে যু্ক্ত।’

প্রসঙ্গত, সীমানা নিয়ে করোনা সঙ্কটের মধ্যেই নেপালের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়েছে ভারত। সম্প্রতি লিপুলেখ গিরিপথ থেকে কৈলাস-মানস সরোবরে যাওয়ার জন্য একটি সড়ক উদ্বোধন করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। তাতে প্রতিবাদ জানায় নেপাল সরকার। এরপর তারা সীমান্তের লিমপিয়াধুরা, কালাপানি ও লিপুলেখকে নেপালের অংশ দাবি করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে। তবে ভারতের দাবি নেপালের মানচিত্রে থাকা ওই তিনটি অংশই তাদের।

No comments:

Post a comment

loading...