Saturday, 6 June 2020

পিনারায়ই বিজয়নের আমলে মহিলারা কি সুরক্ষিত কেরলে?

ওয়েব ডেস্ক ৬ই   জুন  ২০২০:ঈশ্বরের আপন দেশে ফের অনাচার। পাঁচ বছরের ছেলের সামনে তার মাকে ধর্ষণ করল বাবা ও বাবার চার বন্ধু। অভিযোগ, ধর্ষণের আগে ওই মহিলাকে জোর করে নেশা করানো হয়। এমনকী, অভিযুক্তরা আনন্দ পাওয়ার জন্য নির্যাতিতার সারা শরীরে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেয়। কেরলের রাজধানী কোচির এই নৃশংস অত্যাচারের ঘটনায় চমকে উঠেছেন দেশবাসী। গোটা ঘটনায় পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
নির্যাতিতা মহিলার অভিযোগ, তার স্বামী তাঁকে ও তাদের দুই ছেলেকে নিয়ে নিকটবর্তী সমুদ্র সৈকতে ঘুরতে নিয়ে গিয়েছিল। সেখান থেকে তাদের স্বামী এক বন্ধুর বাড়ি নিয়ে গিয়েছিল। সেখানে চার বন্ধুকে নিয়ে মদ্যপানের আসর বসিয়েছিল মূল অভিযুক্ত। সেই আসরে ওই মহিলাকে জোর করে মদ খাওয়ানো হয়। এরপর বিকৃত যৌন লালসা মেটাতে মহিলার সারা শরীরে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেয় পাঁচ অভিযুক্ত। পরে নেশার ঘোরে ছেলের সামনেই মহিলাকে ধর্ষণ করে তারা।অভিযুক্তদের চোখে ধুলো দিয়ে সেখান থেকে কোনওরকমে পালিয়ে আসেন নির্যাতিতা। রাস্তায় এক যুবককে দেখতে পেয়ে সাহায্যও চান। সেই যুবকই ওই মহিলাকে পুলিশের কাছে নিয়ে যান। নিজের স্বামী-সহ পাঁচ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই মহিলা। অভিযোগ পেয়েই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে অত্যাচারের নৃশংসতা দেখে শিউরে উঠেছেন পুলিশের দুঁদে অফিসাররাও। ওই যুবক জানিয়েছেন, নির্যাতিতা কাঁদতে কাঁদতে রাস্তা দিয়ে দৌড়াচ্ছিলেন। তাকে দেখতে পেয়ে সাহায্য চান।পুলিশ জানিয়েছে, পাঁচ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অপহরণ, যৌন নিগ্রহ ও গণধর্ষণের মামলা রুজু করেছে। এছাড়াও নাবালকের সামনে এই অত্যাচার করায় আলাদা ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। কেরলের মহিলা কমিশনের তরফে ঘটনার গতিপ্রকৃতির উপর নজর রাখা হয়েছে।

No comments:

Post a comment

loading...