Tuesday, 28 July 2020

পরের ক্ষতি করতে গিয়ে চীন এখন নিজেই বেসামাল

ওয়েব ডেস্ক ২৮শে জুলাই ২০২০:প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে চীনে সোমবার নতুন করে ৬১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। যা এপ্রিলের পর চিনে  একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। এতে তিন অঞ্চলে করোনা ঢেউ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। চীনের  স্বাস্থ্য কমিশনের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন করে আক্রান্তদের ৫৭ জনই শিনজিয়ান প্রদেশের। মধ্য জুলাইয়ে এই প্রদেশের উরুমছি শহরে করোনার হঠাত প্রাদুর্ভাব ঘটেছে। শিনজিয়ান প্রদেশেই উইঘুর মুসলিমদের বসবার।
এছাড়া লিয়াওনিং প্রদেশে ১৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে। বলা হয়েছে, এই প্রদেশটির ডালিয়ান শহরে গত সপ্তাহে করোনা ক্লাস্টার পাওয়া গেছে। এছাড়া উত্তর কোরিয়া সীমান্তের কাছে জিলিন প্রদেশে দুই জন আরও করোনা রোগী পাওয়া গেছে।

খবরে বলা হয়েছে, ১৪ এপ্রিলের পর দেশটিতে এটি একদিনে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্তের রেকর্ড। সেদিন ৮৯ জন শনাক্ত রোগী পাওয়া যায়। নতুন করে করোনার ঢেউ রুখতে ডালিয়ান ও শিনজিয়াং শহরে ব্যাপক হারে করোনা টেস্ট করা হচ্ছে।

সেইসঙ্গে ডালিয়ান ও উরুমছি শহরে জারি করা হয়েছে লকডাউন।

স্বাস্থ্য কর্মীরা সোমবার বলেছেন, উপসর্গহীন ৩০২ জন করোনা রোগী হাসপাতালের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। এবং বর্তমানে দেশজুড়ে ৩৩১ জন করোনায় আক্রান্ত, এদের মধ্যে ২১ জনের অবস্থা গুরুতর।

No comments:

Post a comment

loading...