Saturday, 25 July 2020

এবার সরসরি রাজ্যপালকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী

ওয়েব ডেস্ক ২৫শে জুলাই ২০২০: মরুরাজ্য থেকে সংকট যেন কাটতেই চাইছে না। রাজস্থানে রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে সংঘাত চরমে। পাইলটকে ছেড়ে এবার রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রর পিছনে পড়েছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। তিনি সরাসরি অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রের মদতে কাজ করছেন। সেকারণে বিধানসভা অধিবেশন ডাকছেন না রাজ্যপাল। রীতি মত হুমকি দিয়ে গেহলট বলেছেন কাল যদি জনতা রাজভবন ঘেরাও করে তাহলে দায়ী থাকবে না রাজ্য সরকার।
মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট চান, সোমবার বিধানসভা অধিবেশন বসুক। কিন্তু রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র কিছুই বলছেন। অগত্যা সরকারের শক্তি প্রদর্শন করতে রাজভবনের সামনেই ধর্নায় বসে পড়লেন অশোক গেহলট। বাসে করে নিয়ে এলেন তার সমর্থিত ১০০ জন বিধায়ককে। এদিন গেহলট স্পষ্ট জানিয়ে দেন, গতকালই রাজ্যপালের কাছে আমরা অনুরোধ জানিয়েছিলেন, বিধানসভা অধিবেশন ডাকার জন্য। কিন্তু তিনি সারা রাতেও কিছুই সাড়া দেন নি। একটা সাধারণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কেন তাকে চাপের মুখে পড়তে হচ্ছে, বিষয়টি তার জানা নেই। রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেন গেহলট।
রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করার পর মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যপাল তাকে বলেছেন, মামলা সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আইনি সব দিক খতিয়েই রাজ্যপালকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। রাজ্যপালের এই কথাতেও চিঁড়ে ভেজেনি। গেহলট স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত রাজ্যপাল বিধানসভার অধিবেশন ডাকছেন, ততক্ষণ তিনি এক পাও নড়বেন না। তার মতে, তার সরকারের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। বিদ্রোহী ১৯ জন বিধায়ক তার সরকারের পক্ষে ভোট না দিলেও তিনি আস্থা ভোটে জিতবেন।
রাজ্যপাল যদি অধিবেশন না ডাকেন তাহলে রাজভবনে গিয়ে হাজির হবেন বিধায়করা। এবং সেখানেই রাজ্যপালকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তিনি করতে চান। পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে। এমনই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। মেজাজ হারাচ্ছেন অশোক গেহলট। দুর্বল হয়ে পড়ছেন আঁচ করেই এই ধরনের কথা বলছেন বলে পাল্টা আক্রমণ করেছেন রাজস্থানের বিজেপি সভাপতি সতীশ পুনিয়া। গেহলটের এই সময় সংযত আচরণ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।ওয়াকিবহাল মহলের মতে, আস্থা ভোট একবার গেহলট জিততে পারলে ৬ মাসের মধ্যে আর সরকারের ভবিষ্যত্‍ নিয়ে প্রশ্ন তোলা যাবে না।

No comments:

Post a comment

loading...