Saturday, 29 August 2020

পুতিনের কন্যার শরীরে স্পুটনিক ভি আন্টিবডি তৈরি করেছে

ওয়েব ডেস্ক ২৯ শে অগাস্ট ২০২০ : প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের রুশ ভ্যাকসিন স্পুটনিক-ভি এর কার্যকারিতা নিয়ে পশ্চিমাদের ব্যাপক সন্দেহের মুখেই প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দাবি করেছেন, ওই ভ্যাকসিন গ্রহণের পর তার মেয়ের শরীরে ‘সফলভাবে’ অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। রুশ সংবাদমাধ্যম স্পুটনিক-এর এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।



করোনা ভাইরাসের নিরাপদ টিকা উদ্ভাবনে বিশ্বজুড়ে তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্যে ১১ আগস্ট বিশ্বের প্রথম ভ্যাকসিন হিসেবে ‘স্পুটনিক ভি’ অনুমোদনের ঘোষণা দেয় রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সে সময় জানান, এই ভ্যাকসিন ইতোমধ্যে তার মেয়ের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। সামান্য জ্বর ছাড়া তার তেমন কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি।২৭ আগস্ট রাশিয়া ২৪ নিউজ চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, আজ আমাদের বিশেষজ্ঞদের কাছে অত্যন্ত স্পষ্ট যে, এই ভ্যাকসিন একটি স্থিতিশীল প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে এবং আমার মেয়ের অ্যান্টিবডি তৈরি করেছে। এটি ক্ষতিকর নয়। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, আমার মেয়ে ভালো আছে।


পুতিন জানান, তার মেয়ের টিকা নেওয়ার পর প্রথম দিন তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস উঠেছিল আর দ্বিতীয় দিনে তা ছিল ৩৭ ডিগ্রির কিছুটা বেশি। ২১ দিনের মাথায় দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার পর তাপমাত্রা সামান্য বেড়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি।


মস্কোর দাবি, বিশ্বের প্রথম স্যাটেলাইটের নামে নামকরণ করা টিকাটি বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে তারা অনুমোদন দিয়েছে। এরই মধ্যে বিশ্বের ২০টি দেশ রাশিয়ার কাছ থেকে মোট ১০০ কোটি ডোজ টিকার আবেদন করেছে।

No comments:

Post a comment

loading...