Monday, 31 August 2020

সিপিএম দাবি জানাতে এক নম্বর, কিন্তু মসনদে বসলেই উল্টোসুর গাইতে শুরু করে

ওয়েব ডেস্ক ৩১ শে অগাস্ট ২০২০ :করোনাকালে সিপিএমের আন্দোলনকে ঘিরে দফায় দফায় সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠেছে ত্রিপুরা। যুযুধান দু’পক্ষ থেকে সব মিলিয়ে আহত কমপক্ষে ২০। গ্রেপ্তার হয়েছেন বিরোধী দলনেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার।

১৬ দফা দাবিতে বুধবার রাজ্যব্যাপী বিক্ষোভ দেখায় সিপিএম। তার মধ্যেই সাব্রুমের শিলাছড়িতে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। আহতদের মধ্যে দুই দলেরই সমর্থক রয়েছেন। 

এদিকে বিজেপি এই হামলার জন্য সিপিএমকে দায়ী করছে। অন্যদিকে সিপিএম দায়ী করছে বিজেপিকে। অন্যদিকে সকালেই রাস্তায় নামেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। রাজধানী আগরতলার রাজপথে হাঁটেন বেশ কিছু সময়। এরপর পুলিশ গতিরোধ করলে স্বেচ্ছায় গ্রেপ্তারি বরণ করেন মানিক বাবু। যদিও তাঁকে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, স্বেচ্ছায় পুলিশের গাড়িতে উঠে বসেন মানিক বাবু। যদিও তাঁকে গ্রেপ্তারের সময় পার্টির কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকেন। সব মিলিয়ে সিপিএমের আন্দোলনকে ঘিরে গোটা রাজ্যেই বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এদিকে, রাজ্যের শাসকদল বিজেপির অভিযোগ, আন্দোলন ব্যর্থ হওয়ার পর বিভিন্ন জায়গায় প্ররোচনা দিচ্ছে সিপিএম। পালটা মানিকবাবু অভিযোগ করেন, বর্তমান রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার সব দিক দিয়ে ব্যর্থ হয়েছে। করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ কেন্দ্রীয় সরকার। দ্রব্যমূল্য দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই দেশে। চিন এবং উত্তর কোরিয়া থেকে শিক্ষানিতে বললেন মানিক বাবু। তিনি বিজেপি বিরোধী ‘ঐক্য ফ্রন্ট’ গড়ার ডাক দিয়েছেন। তার মতে বর্তমানে বিজেপিকে রুখতে হলে বাকি সব দলকে এক সাথে আসতে হবে

No comments:

Post a comment

loading...