Monday, 28 September 2020

কাশ্মীরকে অশান্ত রাখতে সরাসরি অস্ত্রের মদদ চীনের, পাকিস্তানের মাধ্যমে

ওয়েব ডেস্ক ২৮শে সেপ্টেম্বর ২০২০ :লাদাখে সীমান্ত সংঘাতের আবহেই জম্মু-কাশ্মীর নিয়েও ভারতকে ব্যতিব্যস্ত রাখতে চাইছে চীন। গোয়েন্দা রিপোর্ট উল্লেখ করে ভারতের সরকারি সূত্রে এমনটাই দাবি করা হয়েছে।কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা বলছেন, বেইজিংয়ের মদতেই ভূস্বর্গে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্র এবং গোলাবারুদ ঢোকানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তান। ইসলামাবাদকে অস্ত্র এবং অন্যান্য সরঞ্জাম দিয়েও সাহায্য করছে চীন।কিন্তু ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর কড়া নজরদারির কারণে অনুপ্রবেশের চেষ্টা সফল হয়নি বলে দাবি তাদের। কেন্দ্রের দাবি, কাশ্মীরে অশান্তি জিইয়ে রাখতে পাকিস্তানকে সরাসরি মদদ দিচ্ছে চীন, এ সন্দেহ দানা বাঁধছিল বহুদিন ধরেই। সম্প্রতি উপত্যকা থেকে একাধিকবার প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছে।

সেই অস্ত্রসম্ভারের মধ্যে পাওয়া গিয়েছে চীনা আগ্নেয়াস্ত্র এবং যুদ্ধের সরঞ্জাম। আর তাতে নয়াদিল্লির সন্দেহ আরও জোরদার হয়েছে।ভারতের সরকারি তথ্য জানাচ্ছে, কাশ্মীর থেকে একাধিকবার ইএমইআই টাইপ ৯৭ এনএসআর রাইফেল উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী। ওই রাইফেল তৈরি করে চীনা সংস্থা নরিনকো এবং তা চীনের সেনা ব্যবহারও করে।গোয়েন্দাদের ধারণা, ওই রাইফেলই ‘উপহার’ হিসেবে ইসলামাবাদের হাতে তুলে দিচ্ছে বেইজিং। এ ছাড়াও চীনা ছাপ থাকা বিপুল আগ্নেয়াস্ত্র কাশ্মীর থেকে উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী।ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে বলা হচ্ছে, ১৪ সেপ্টেম্বর গুরেজ সেক্টর দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালায় কয়েকজন জঙ্গি। তাদের পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানায়, ভারতীয় বাহিনী। প্রবল বাধার মুখে পড়ে কিষাণগঙ্গা নদীতে ঝাঁপ দেয় জঙ্গিদের ওই দলটি।কিন্তু তারা অস্ত্রবোঝাই একটি রুকস্যাক ফেলে যায়। তার মধ্যে মিলেছে চীনা সংস্থা নরিনকোর তৈরি একটি কিউবিজেড ৯৫ রাইফেল।

No comments:

Post a comment

loading...