Thursday, 24 September 2020

বামফ্রন্টের নীতি ছিল মানুষকে সর্বশান্ত করে সংগঠন শক্তিশালী করার, মমতার নীতি কর্মসংস্থান

ওয়েব ডেস্ক ২৪ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ : সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। তার ঠিক আগে কর্মসংস্থানেই নজর দিলেন মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যে কর্মসংস্থানের দিশা দেখালেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায় বানতলা, দিঘা, মেদিনীপুরের মতো একাধিক জায়গায় বিনিয়োগ হচ্ছে এবার । রাজ্যে প্রচুর কর্মসংস্থান হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নির্বাচনের আগে ভোটব্যাঙ্ক গুছোতেই মুখ্যমন্ত্রী এই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন বলেই বিরোধীদের বক্তব্য।

পরিবেশ রক্ষায় গুরুত্ব দিয়ে রাজ্যে কর্মসংস্থান বাড়ানোর লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার দুটো  পরিবেশ বান্ধব প্রকল্পের শিলান্যাস করেছেন। নবান্নে এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে তিনি বানতলা চর্মনগরীর দূষণ নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প ও দিঘায় একটি ২০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পের শিলান্যাস করেন। ইউরোপের একাধিক দেশের সহযোগিতায় এই প্রকল্পগুলি বাস্তবায়িত হবে।

শিলান্যাস অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “৬ মাস আগে গত ডিসেম্বরে এই প্রকল্পগুলির মউ সাক্ষরিত হয়েছিল। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও অনবরত কাজ করে এই প্রকল্পগুলি বাস্তবায়নের দিকে এগোচ্ছে।” এজন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলিকে তিনি ধন্যবাদ জানান। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বানতলা চর্মনগরী বিশ্বের সেরা চর্মশিল্পকেন্দ্রগুলির একটি। এখানে রাজ্য তো বটেই ভিনরাজ্যের চর্মশিল্পদ্যোগীরাও বিনিয়োগ করছেন। সাড়া মিলেছে চেন্নাই ও লখনউ থেকে।”  তাঁর দাবি, “এই প্রকল্পে কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। জার্মানির একটি সংস্থা দিঘায় একটি ২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরি করবে। এর ফলে দূষণমুক্ত শক্তি পাবেন রাজ্যবাসী। যা আগামীর জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।” এদিন “ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে পশ্চিমবঙ্গ দেশে প্রথম” বলেও মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন।

No comments:

Post a comment

loading...