Thursday, 3 September 2020

কে আমরিকে বাংলার মুখ কালিমালিপ্ত করার জন্য ইন্ধন যোগাচ্ছে ?

ওয়েব ডেস্ক ৩রা সেপ্টেম্বর ২০২০ :রাজ্য সরকার যত চোখ রাঙানোই দিক না কেন কলকাতা তথা রাজ্যের বুকে একশ্রেনীর ব্রান্ডেড বেসরকারি হাসপাতালের চূড়ান্ত অমানবিক আচরণ বন্ধ আর হচ্ছে না। এবার খাস কলকাতার বুকে রোগীকে আটকে রেখে বিল বাড়ানোর অভিযোগ উঠল এক নামী বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। ক্ষুব্ধ রোগী পরিবারের সদস্যরা ইতিমধ্যেই বিষয়টি পূর্ব যাদবপুর থানায় জানিয়ে অভিযোগও দায়ের করেছেন।

রোগির পরিবার জানিয়েছে, তাদের আত্মীয় ডালিয়া সেন(৪৮) বরাহনগরের বাসিন্দা। বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন। গত ২৩ আগস্ট তাঁকে চিকিৎসার জন্য বরাহনগরের একটি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর করোনা পরীক্ষা হলে নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর ২৪ আগস্ট তাঁকে মুকুন্দপুরের আমরি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ আগস্ট সেখানেও করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে ডালিয়া দেবির। তারপর থেকে ওই হাসপাতালে তাঁর আটবার ডায়ালিসিস হয়। এদিকে হঠাৎ করে বুধবার হাসপাতালের তরফ থেকে জানানো হয় ডালিয়া দেবির করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ। এরপরই ওই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন রোগীর পরিবারের সদস্যরা।

 

তাঁদের অভিযোগ, কিছুদিন আগেই একই হাসপাতালে রোগীর রিপোর্ট নেগেটিভ ছিল, তার রিপোর্ট কি করে পজিটিভ হল? ডালিয়া দেবীর পরিবারের অভিযোগ, রোগীকে ইচ্ছাকৃত ভাবে আটকে রেখে বিল বাড়ানোর চেষ্টা করছে আমরি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তাঁদের সন্দেহ ইচ্ছাকৃত ভাবে ওই হাসপাতাল সাধারন রোগীকে কোনও ভাবে করোনা সংক্রমণ করে এই ভাবে রোগী আটকে রেখে বিল বাড়াচ্ছে। যদিও এই বিষয়ে আমরি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাঁরা মুখ খুলতে চাননি।

No comments:

Post a comment

loading...