Monday, 5 October 2020

বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে একদম চটাতে চাননা চিরাগ পাসোয়ান

ওয়েব ডেস্ক ৫ই  অক্টোবর ২০২০ : বিধানসভা ভোটের আগে এনডিএ ছাড়লেন চিরাগ পাসোয়ান। রবিবার এনডিএ জোট ছেড়েছে চিরাগ পাসোয়ানের এলজেপি। সম্প্রতি বিহারের বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ এবং বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদি দিল্লি যান। সেখানে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে বৈঠক করেন তাঁরা। রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, জেপি নাড্ডা ও বিজেপির সেন্ট্রাল ইলেকশন কমিটির আরও কয়েকজন শীর্ষনেতা বৈঠকে বসেন।

সূত্রের খবর এই বৈঠকে বিহারের সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকা নিয়ে আলোচনা হয়। এরপরেই রবিবার চিরাগ পাসোয়ান ঘোষণা করেন যে, তাঁর দল এলজেপি আসন্ন নির্বাচনে এনডিএ জোটে লড়াই করবে না। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের কয়েকটি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন। চিরাগের দল এলজেপি আসন্ন বিহারের নির্বাচনে নীতীশ কুমারের জেডি (ইউ)-এর বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে। কিন্তু বিজেপির বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে না।

তিনি এও জানিয়েছেন যে, বিজেপির সঙ্গে তাঁর কোনও বিরোধিতা নেই। চিরাগ জানিয়েছেন যে, বিহারে ভোটের পরে তাঁর দল বিজেপির সঙ্গে যৌথভাবে সরকার গড়বে।চিরাগ পাসোয়ানের বাবা রামবিলাস পাসোয়ান বর্তমানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য। আসন্ন বিহার বিধানসভা নির্বাচনে এনডিএ-র মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হচ্ছেন নীতীশ কুমার। বিরোধীদের তরফে এবার মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হচ্ছেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। রাজ্যের ২৩০ টি বিধানসভা আসনের মধ্যে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের ছেলে তেজস্বীর দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ১৪৪ টিতে। আরজেডির জোটশরিক কংগ্রেস লড়াই করবে ৭০টি আসন। বামপন্থী দলগুলি লড়বে ২৯টি আসনে।উল্লেখ্য, বিহারে আগামী ২৮ অক্টোবর ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে। ৩ নভেম্বর ও ৭ নভেম্বর ভোটগ্রহণ হবে বিহারে। ফল প্রকাশিত হবে ১০ নভেম্বর।


No comments:

Post a comment

loading...