Friday, 2 October 2020

বাড়ির লোকেদের তালা বন্ধ করে মেয়ের লাশ পোড়াল যোগীর পুলিশ

ওয়েব ডেস্ক ২রা  অক্টোবর ২০২০ :  গণধর্ষণের শিকার হয়ে মারা যাওয়া এক তরুণীর মরদেহ পরিবারের অনুমতি ছাড়া দাহ করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। উত্তর প্রদেশ হাথরাস জেলায় গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ঘটনাটি ঘটে। দলিত পরিবারের ওই তরুণী (১৯) দুই সপ্তাহ আগে নিজ গ্রামের উচ্চ বর্ণের চার ব্যক্তির দ্বারা নিগ্রহের শিকার হন।

সূত্রের খবর অনুযায়ী , গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, পুলিশ অ্যাম্বুলেন্সে করে মেয়েটির মরদেহ এলাকায় নিয়ে আসছে। এ সময় তাঁর শোকাহত পরিবার ও এলাকাবাসী বারবার মরদেহ দেওয়ার দাবি জানিয়েছিল । এক ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, মরদেহ শেষবারের মতো বাড়িতে নেওয়ার জন্য মেয়েটির মা গাড়ির সামনের অংশে মাথা রেখে আহাজারি করছেন। আরেক ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, মেয়ের মরদেহের দাবিতে মা অ্যাম্বুলেন্সের সামনে বসে আহাজারি করছেন ও বুক চাপড়াচ্ছেন।

পুলিশের এমন কীর্তির প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় সাংবাদিক অভিষেক মাথুর বলেন, রাত আড়াইটায় পুলিশ মেয়েটির লাশ দাহ করে। সেখানে পরিবারের কোনো সদস্য বা কোনো সাংবাদিককে যেতে দেওয়া হয়নি। তিনি দূর থেকে দাহের দৃশ্য দেখেছেন। পরিবারের সদস্যদের দাবি, দাহের সময় তাঁদের ঘরে তালাবদ্ধ করে রেখে যায় পুলিশ।


সূত্রের খবর অনুসারে , অধিকারকর্মীরা পুলিশের এমন কর্মকাণ্ডের ব্যাখ্যা দাবি করেছেন। ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরোধী পক্ষ কংগ্রেস এ ঘটনাকে মানবাধিকারের লঙ্ঘন উল্লেখ করে নিন্দা জানিয়েছে। হাথরাসজুড়ে বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে মানুষ। দলিত অধিকারকর্মীরা সেখানকার প্রধান বাজার বন্ধ করে দিয়েছে। তাঁরা সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিচার দাবি করেছেন।

No comments:

Post a comment

loading...